মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ

বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কৃষি মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রনাধীন সংস্থা।

দপ্তর প্রধান পদবীঃ সহকারী প্রকৌশলী।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

সেবা এবং ধাপসমূহ (সকল)

০১

গভীর নলকুপের কমান্ড এলাকার আওতায় আবাদযোগ্য/চাষকৃত জমিতে সেচ সুবিধা প্রদান।

০২

গভীর নলকুপ পরিচালনা ও রক্ষনাবেক্ষণ কাজ

০৩

সেচের পানি বিতরণ ব্যবস্থা (ভূ-উপরিস্থ পাইপ লাইন)নির্মাণ,পূণঃনির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষল কাজ

০৪

পূণঃ খননকৃত খাস মজা পুকুর ও খাল/খাড়ীতে বৃষ্টির পানি ধারনের নিমিত্তে সাব-মার্জডওয়্যার/ক্রসড্যাম নির্মাণ করে পানি ধারণ ও সেচ সুবিধা প্রদান

০৫

আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি সম্পর্কে কৃষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান

০৬

ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে উন্নতজাতের বীজ কৃষকদের মাঝে সরবরাহ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সিটিজেন চার্টার

বি এম ডি এর সেবাসমুহঃ

(১) গভীর নলকূপ খনন এবং আবাদযোগ্য জমি নিয়ন্ত্রিত সেচ সুবিধার আওতায় এনে কুপন পদ্ধতি/ প্রি-পেইড মিটারের মাধ্যমে আধুনিক পদ্ধতিতে কৃষকদের চাহিদা অনুযায়ী কম খরচে পরিমিত সেচ প্রদান।

(২) ভূ-উপরিস্থ পানির উৎস্য বৃদ্ধির জন্য খাল ও পুকুর পুনঃখনন ও সেচ কাজে ব্যবহার।

(৩) ভূ-গর্ভস্থ পাইপ লাইনের মাধ্যমে সেচের পানি ও কৃষি জমির অপচয় কমানো ও সেচ এলাকা বৃদ্ধির জন্য সেচকাজে ব্যবহার্য পানি বন্টন ব্যবস্থা নির্মাণ এবং কম খরচে সেচ সুবিধা প্রদানের জন্য সেচ যন্ত্রে বিদ্যুতায়ন।

(৪) সেচের গভীর নলকূপ হতে আর্সেনিকমুক্ত খাবার পানি সরবরাহ।

(৫) বাজার ব্যবস্থা উন্নয়নে গ্রামীন সংযোগ সড়ক নির্মাণ।

(৬) প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা আনয়নে ব্যাপক বনায়ন।

(৭) ফসলের বহুমূখীকরণের মাধ্যমে নিবিড়তা বৃদ্ধিকল্পে উন্নত জাতের বীজ বিতরণ।

(৮) বিভিন্নমূখী উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে এলাকায় কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে গ্রামীন জনগোষ্ঠীর দারিদ্র বিমোচন ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সহায়তা করা।

 

সেবা প্রদানের স্তরঃ

(১) বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) সদর দপ্তর বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে অব্স্থিত।

(২) রাজশাহী বিভাগের সকল জেলা পর্যায়ে নির্বাহী প্রকৌশলীর একটি করে দপ্তর আছে। জেলাসমুহ সেবা প্রদানের দ্বিতীয় স্তর।

(৩) রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী, নওগাঁ, চাঁপাই নবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলার উপজেলা সমুহে সহকারী প্রকৌশলীর একটি করে দপ্তর আছে। অবশিষ্ট জেলার আওতায় এক বা একাধিক উপজেলা নিয়ে সহকারী প্রকৌশলীর একটি করে দপ্তর রয়েছে। যা জোন দপ্তর হিসেবে পরিচিত এবং সেবা প্রদানের প্রাথমিক স্তর ও কেন্দ্রবিন্দু।

 

সেবা প্রদানের পদ্ধতিঃ

(ক) গভীর নলকূপের মাধ্যমে সেচ প্রদানঃ

(১) গভীর নলকূপ স্থাপন করে আধুনিক সেচ ব্যবস্থাপনায় কৃষকদের সেচ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করা।

(২) নিয়ন্ত্রিত সেচ প্রদানে গভীর নলকূপ স্থাপনের সাথে সাথে সেচের পানি বিতরণে ভূ-গর্ভস্থ পাইপ লাইন নির্মাণ ও সেচ যন্ত্রে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের মাধ্যমে সেচ সুবিধা প্রদান করা।

(৩) সেচ সুবিধা গ্রহণের পূর্বে আগ্রহী কৃষকবৃন্দ গভীর নলকূপ গ্রহণে ন্যূনপক্ষে ৬০ একর সেচ এলাকা হিসেবে স্কীম উপজেলা পর্যায়ে জমা দিবেন। কারিগরিভাবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদিত হলেই কেবল গভীর নলকূপ খনন সহ অন্যান্য আনুষাঙ্গিক বিষয়গুলো (পানি বিতরণ ব্যবস্থা, বিদ্যুৎসংযোগ) নিশ্চিত করা।

(৪) গভীর নলকূপ পরিচালনার জন্য বিএমডিএ কর্তৃক নিয়োজিত একজন অপারেটর বিএমডিএ’র নির্ধারিত বিধিবিধান মতে কৃষকদের চাহিদা মোতাবেক সেচের পানি সরবরাহ করে থাকেন।

(৫) উপকারভোগী কৃষকদের সেচের পানি গ্রহণ করতে বিএমডিএ কর্তৃক ধার্যকৃত সেচ-চার্জ সেচ গ্রহণের পূর্বেই পরিশোধ করতে হয়। সেচ চার্জ পরিশোধের জন্য বর্তমানে পরিচালিত সেচ কূপন জমা বা প্রি-পেইড কার্ডের মাধ্যমে অপারেটরের নিকট হতে প্রয়োজন মোতাবেক সেচ গ্রহণ করতে পারেন।

(৬) বিএমডিএ গভীর নলকূপ সহ সংশ্লিষ্ট সেচ স্থাপনা সমুহের রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে।

 

(খ) ভূ-উপরিস্থ পানির সরবরাহ বৃদ্ধি ও সেচ কাজে ব্যবহারঃ

(১) ভূ-উপরিস্থ পানির প্রাপ্যতার ভিত্তিতে সেচকাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

(২) খাল/খাড়ী, পুকুর পুনঃখনন করে ভূ-উপরিস্থ পানির সরবরাহ বৃদ্ধি করে থাকে। পুনঃখননকৃত খালে  ক্রসড্যাম নির্মাণ করে বৃষ্টির পানি ধরে রেখে আমনে সম্পূরক সেচ প্রদানসহ বোরো ও শীতকালীন ফসল উৎপাদনে কৃষকদের সেচ সুবিধা প্রদান করে থাকে।

 

(গ) কৃষি উপকরণ সেবা প্রদান ও প্রশিক্ষণঃ

(১) বিএমডিএ নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় প্রক্রিয়াজাতকরণের মাধ্যমে বিভিন্ন জাতের উচ্চ ফলনশীল ধানের বীজ ন্যায্যমূল্যে কৃষকদের মাধ্যমে সরবরাহ করে থাকে।

(২) উপজেলা/জোন পর্যায়ে বিএমডিএ’র সহকারী প্রকৌশলীর মাধ্যমে বীজ ও অন্যান্য উপকরণ বিতরণ করা হয়।

(৩) আধুনিক চাষাবাদের সাথে কৃষকদের সম্পৃক্ত করে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপকারভোগী কৃষকদের উপজেলা পর্যায়ে সেচসহ বিভিন্ন কার্যক্রমের উপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

(৪) ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধি ও বিচিত্রতা বৃদ্ধির উপর কৃষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

 

(ঘ) বৃক্ষরোপন কার্যক্রম সেবাঃ

(১) বিএমডিএ’র নিয়ন্ত্রনাধীন উপজেলা পর্যায়ে নার্সারী রয়েছে। বিভিন্ন জাতের ফসজ ও বনজ বৃক্ষের চারা ন্যায্যমূল্যে সরবরাহ করা হয়।

(২) প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা রক্ষার্থে সরকারী রাস্তার ধারে, বাঁধ, খাস জমি, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ইত্যাদি স্থানের পার্শ্ববর্তী জমির মালিকের সাথে অংশীদারের ভিত্তিতে বৃক্ষরোপন করা হয়।

(৩) চারা উৎপাদন, বৃক্ষরোপন ও রক্ষণাবেক্ষণ এবং প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা রক্ষার্থে প্রশিক্ষণ  দেওয়া হয়।

 

 

(ঙ) অন্যান্য সেবাঃ

(১) গ্রামীণ জনসাধারণের উৎপাদিত ফসল বাজারজাতকরণ এবং যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নয়নে সংযোগ সড়ক নির্মাণ।

(২) জ্বালানী সাশ্রয়, বিদ্যুৎসাশ্রয়, জৈবসার প্রস্তুতকরণ প্রক্রিয়াসহ পরিবেশ বান্ধব কার্যক্রম সম্পর্কে গ্রামীণ জনসাধারণকে প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তি হন্তান্তর।

(৩) স্থাপিত গভীর নলকূপ হতে আর্সেনিকমুক্ত বিশুদ্ধ খাবার পানি পাইপ লাইনের মাধ্যমে গ্রামের জনসাধারণের মধ্যে সরবরাহজ করা।

(চ) সেবা প্রাপ্তির স্থানঃ

(১) উপজেলা/জোন পর্যায়ে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষের সহকারী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহ।

(২) জেলা পর্যায়ে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহ।

(৩)বিএমডিএ’র সদর দপ্তর রাজশাহী।

 

(ছ) সেবা গ্রহণকারী জনসাধারণের অভিযোগ/দুর্দশার প্রতিকারঃ

(১) সেবা গ্রহণকারী জনসাধারণ কর্তৃপক্ষের কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট আভিযোগ/দুর্দশা দ্রুততার সাথে প্রতিকারের জন্য ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে উপজেলা পর্যায়ে সহকারী প্রকৌশলী, জেলা পর্যায়ে নির্বাহী প্রকৌশলী কাজ করবেন।

(২) উপজেলা/জোন পর্যায়ের ফোকাল পয়েন্টে অভিযোগ/সমস্যাউত্থাপিত হলে তিনি সেবা প্রাপ্তির প্রকৃতি বিবেচনা করে ৩–৭ দিনের মধ্যে সমস্যা নিরসন করবেন। সমস্যা সমাধান/সেবা প্রদান তার ক্ষমতা (CAPABILITY)বহির্ভূত হলে জেলা পর্যায়ের ফোকাল পয়েন্টের নিকট মতামত/সুপারিশসহ প্রেরণ করবেন।

(৩) জেলা পর্যাযের ফোকাল পয়েন্ট প্রাপ্ত অভিযোগ সমস্যা/মতামত পরবর্তী ০৭-১০ দিনের মধ্যে অভিযোগের সমাধান/সেবা নিশ্চিত করবেন।

 

(জ) সেবা গ্রহণকারী জনসাধারণের অভিযোগ/সমস্যা দাখিলের স্থানঃ

(১) উপজেলা/জোন পর্যায়ে বিএমডিএ’র সহকারী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহের ফোকাল পয়েন্ট।

(২) জেলা পর্যায়ে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহের ফোকাল পয়েন্ট।

(৩) বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সদর দপ্তর, রাজশাহী’র ফোকাল পয়েন্ট।

বি এম ডি এর সেবাসমুহঃ

(১) গভীর নলকূপ খনন এবং আবাদযোগ্য জমি নিয়ন্ত্রিত সেচ সুবিধার আওতায় এনে কুপন পদ্ধতি/ প্রি-পেইড মিটারের মাধ্যমে আধুনিক পদ্ধতিতে কৃষকদের চাহিদা অনুযায়ী কম খরচে পরিমিত সেচ প্রদান।

(২) ভূ-উপরিস্থ পানির উৎস্য বৃদ্ধির জন্য খাল ও পুকুর পুনঃখনন ও সেচ কাজে ব্যবহার।

(৩) ভূ-গর্ভস্থ পাইপ লাইনের মাধ্যমে সেচের পানি ও কৃষি জমির অপচয় কমানো ও সেচ এলাকা বৃদ্ধির জন্য সেচকাজে ব্যবহার্য পানি বন্টন ব্যবস্থা নির্মাণ এবং কম খরচে সেচ সুবিধা প্রদানের জন্য সেচ যন্ত্রে বিদ্যুতায়ন।

(৪) সেচের গভীর নলকূপ হতে আর্সেনিকমুক্ত খাবার পানি সরবরাহ।

(৫) বাজার ব্যবস্থা উন্নয়নে গ্রামীন সংযোগ সড়ক নির্মাণ।

(৬) প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা আনয়নে ব্যাপক বনায়ন।

(৭) ফসলের বহুমূখীকরণের মাধ্যমে নিবিড়তা বৃদ্ধিকল্পে উন্নত জাতের বীজ বিতরণ।

(৮) বিভিন্নমূখী উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে এলাকায় কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে গ্রামীন জনগোষ্ঠীর দারিদ্র বিমোচন ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সহায়তা করা।

 

সেবা প্রদানের স্তরঃ

(১) বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) সদর দপ্তর বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে অব্স্থিত।

(২) রাজশাহী বিভাগের সকল জেলা পর্যায়ে নির্বাহী প্রকৌশলীর একটি করে দপ্তর আছে। জেলাসমুহ সেবা প্রদানের দ্বিতীয় স্তর।

(৩) রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী, নওগাঁ, চাঁপাই নবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলার উপজেলা সমুহে সহকারী প্রকৌশলীর একটি করে দপ্তর আছে। অবশিষ্ট জেলার আওতায় এক বা একাধিক উপজেলা নিয়ে সহকারী প্রকৌশলীর একটি করে দপ্তর রয়েছে। যা জোন দপ্তর হিসেবে পরিচিত এবং সেবা প্রদানের প্রাথমিক স্তর ও কেন্দ্রবিন্দু।

 

সেবা প্রদানের পদ্ধতিঃ

(ক) গভীর নলকূপের মাধ্যমে সেচ প্রদানঃ

(১) গভীর নলকূপ স্থাপন করে আধুনিক সেচ ব্যবস্থাপনায় কৃষকদের সেচ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করা।

(২) নিয়ন্ত্রিত সেচ প্রদানে গভীর নলকূপ স্থাপনের সাথে সাথে সেচের পানি বিতরণে ভূ-গর্ভস্থ পাইপ লাইন নির্মাণ ও সেচ যন্ত্রে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের মাধ্যমে সেচ সুবিধা প্রদান করা।

(৩) সেচ সুবিধা গ্রহণের পূর্বে আগ্রহী কৃষকবৃন্দ গভীর নলকূপ গ্রহণে ন্যূনপক্ষে ৬০ একর সেচ এলাকা হিসেবে স্কীম উপজেলা পর্যায়ে জমা দিবেন। কারিগরিভাবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদিত হলেই কেবল গভীর নলকূপ খনন সহ অন্যান্য আনুষাঙ্গিক বিষয়গুলো (পানি বিতরণ ব্যবস্থা, বিদ্যুৎসংযোগ) নিশ্চিত করা।

(৪) গভীর নলকূপ পরিচালনার জন্য বিএমডিএ কর্তৃক নিয়োজিত একজন অপারেটর বিএমডিএ’র নির্ধারিত বিধিবিধান মতে কৃষকদের চাহিদা মোতাবেক সেচের পানি সরবরাহ করে থাকেন।

(৫) উপকারভোগী কৃষকদের সেচের পানি গ্রহণ করতে বিএমডিএ কর্তৃক ধার্যকৃত সেচ-চার্জ সেচ গ্রহণের পূর্বেই পরিশোধ করতে হয়। সেচ চার্জ পরিশোধের জন্য বর্তমানে পরিচালিত সেচ কূপন জমা বা প্রি-পেইড কার্ডের মাধ্যমে অপারেটরের নিকট হতে প্রয়োজন মোতাবেক সেচ গ্রহণ করতে পারেন।

(৬) বিএমডিএ গভীর নলকূপ সহ সংশ্লিষ্ট সেচ স্থাপনা সমুহের রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে।

 

(খ) ভূ-উপরিস্থ পানির সরবরাহ বৃদ্ধি ও সেচ কাজে ব্যবহারঃ

(১) ভূ-উপরিস্থ পানির প্রাপ্যতার ভিত্তিতে সেচকাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

(২) খাল/খাড়ী, পুকুর পুনঃখনন করে ভূ-উপরিস্থ পানির সরবরাহ বৃদ্ধি করে থাকে। পুনঃখননকৃত খালে  ক্রসড্যাম নির্মাণ করে বৃষ্টির পানি ধরে রেখে আমনে সম্পূরক সেচ প্রদানসহ বোরো ও শীতকালীন ফসল উৎপাদনে কৃষকদের সেচ সুবিধা প্রদান করে থাকে।

 

(গ) কৃষি উপকরণ সেবা প্রদান ও প্রশিক্ষণঃ

(১) বিএমডিএ নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় প্রক্রিয়াজাতকরণের মাধ্যমে বিভিন্ন জাতের উচ্চ ফলনশীল ধানের বীজ ন্যায্যমূল্যে কৃষকদের মাধ্যমে সরবরাহ করে থাকে।

(২) উপজেলা/জোন পর্যায়ে বিএমডিএ’র সহকারী প্রকৌশলীর মাধ্যমে বীজ ও অন্যান্য উপকরণ বিতরণ করা হয়।

(৩) আধুনিক চাষাবাদের সাথে কৃষকদের সম্পৃক্ত করে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপকারভোগী কৃষকদের উপজেলা পর্যায়ে সেচসহ বিভিন্ন কার্যক্রমের উপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

(৪) ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধি ও বিচিত্রতা বৃদ্ধির উপর কৃষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

 

(ঘ) বৃক্ষরোপন কার্যক্রম সেবাঃ

(১) বিএমডিএ’র নিয়ন্ত্রনাধীন উপজেলা পর্যায়ে নার্সারী রয়েছে। বিভিন্ন জাতের ফসজ ও বনজ বৃক্ষের চারা ন্যায্যমূল্যে সরবরাহ করা হয়।

(২) প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা রক্ষার্থে সরকারী রাস্তার ধারে, বাঁধ, খাস জমি, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ইত্যাদি স্থানের পার্শ্ববর্তী জমির মালিকের সাথে অংশীদারের ভিত্তিতে বৃক্ষরোপন করা হয়।

(৩) চারা উৎপাদন, বৃক্ষরোপন ও রক্ষণাবেক্ষণ এবং প্রাকৃতিক ভারসাম্যতা রক্ষার্থে প্রশিক্ষণ  দেওয়া হয়।

 

 

(ঙ) অন্যান্য সেবাঃ

(১) গ্রামীণ জনসাধারণের উৎপাদিত ফসল বাজারজাতকরণ এবং যাতায়াত ব্যবস্থা উন্নয়নে সংযোগ সড়ক নির্মাণ।

(২) জ্বালানী সাশ্রয়, বিদ্যুৎসাশ্রয়, জৈবসার প্রস্তুতকরণ প্রক্রিয়াসহ পরিবেশ বান্ধব কার্যক্রম সম্পর্কে গ্রামীণ জনসাধারণকে প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তি হন্তান্তর।

(৩) স্থাপিত গভীর নলকূপ হতে আর্সেনিকমুক্ত বিশুদ্ধ খাবার পানি পাইপ লাইনের মাধ্যমে গ্রামের জনসাধারণের মধ্যে সরবরাহজ করা।

(চ) সেবা প্রাপ্তির স্থানঃ

(১) উপজেলা/জোন পর্যায়ে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষের সহকারী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহ।

(২) জেলা পর্যায়ে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহ।

(৩)বিএমডিএ’র সদর দপ্তর রাজশাহী।

 

(ছ) সেবা গ্রহণকারী জনসাধারণের অভিযোগ/দুর্দশার প্রতিকারঃ

(১) সেবা গ্রহণকারী জনসাধারণ কর্তৃপক্ষের কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট আভিযোগ/দুর্দশা দ্রুততার সাথে প্রতিকারের জন্য ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে উপজেলা পর্যায়ে সহকারী প্রকৌশলী, জেলা পর্যায়ে নির্বাহী প্রকৌশলী কাজ করবেন।

(২) উপজেলা/জোন পর্যায়ের ফোকাল পয়েন্টে অভিযোগ/সমস্যাউত্থাপিত হলে তিনি সেবা প্রাপ্তির প্রকৃতি বিবেচনা করে ৩–৭ দিনের মধ্যে সমস্যা নিরসন করবেন। সমস্যা সমাধান/সেবা প্রদান তার ক্ষমতা (CAPABILITY)বহির্ভূত হলে জেলা পর্যায়ের ফোকাল পয়েন্টের নিকট মতামত/সুপারিশসহ প্রেরণ করবেন।

(৩) জেলা পর্যাযের ফোকাল পয়েন্ট প্রাপ্ত অভিযোগ সমস্যা/মতামত পরবর্তী ০৭-১০ দিনের মধ্যে অভিযোগের সমাধান/সেবা নিশ্চিত করবেন।

 

(জ) সেবা গ্রহণকারী জনসাধারণের অভিযোগ/সমস্যা দাখিলের স্থানঃ

(১) উপজেলা/জোন পর্যায়ে বিএমডিএ’র সহকারী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহের ফোকাল পয়েন্ট।

(২) জেলা পর্যায়ে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরসমুহের ফোকাল পয়েন্ট।

(৩) বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সদর দপ্তর, রাজশাহী’র ফোকাল পয়েন্ট।

ছবি নাম মোবাইল
মোহাম্মদ খায়রুল আলম ০১৭১৮৭২৫৬১৭
শ্রী রঞ্জন কুমার রায় 01712778489

ছবি নাম মোবাইল

ছবি নাম মোবাইল

গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প সমূহ

(১) পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর ও জয়পুরহাট সমন্বিত কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প (IADP)।

(২) ভূ-গর্ভস্থ পাইপ লাইন বর্ধিতকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্প(CAED)।

(৩) সেচের গভীর নলকূপ হতে খাবার পানি সরবরাহ স্থাপনা নির্মাণ প্রকল্প।

(৪) অকেজো/অচালু গভীর নলকূপ সচলকরণ প্রকল্প।

(৫) বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ ও সেচ প্রকল্প।

(৬) সরু চাল উৎপাদন ও বিপনন কর্মসূচী প্রকল্প।

বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ

বালিয়াডাংগী জোন, ঠাকুরগাঁও

মোবাইল নাম্বার

০১৭১৮৭২৫৬১৭

মোবাইল নাম্বার

01712778489