মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

বালিয়াডাংগীর প্রবেশদ্বার

ভূমিকা ও প্রেক্ষাপটঃ

 

উপজেলা পরিষদকে একটি শক্তিশালী কার্যকর, গণতান্ত্রিক ও জবাবদিহিতামূলক স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষে স্থানীয় সরকার বিভাগ উপজেলা গভর্ন্যান্স প্রজেক্ট (ইউজেডজিপি) এর আওতায় বাংলাদেশের প্রতিটি উপজেলায় পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়ন বাধ্যতামুলক করা হয়েছে। পরিকল্পনা উন্নয়নের পূর্ব শর্ত যার মাধ্যমে একটি সুবিন্যাসিত রূপরেখার  পথে অগ্রসর হয়ে পরিকল্পনা সমূহ বাসত্মবায়নের মাধ্যমে উন্নয়নের পথে ধাবিত হওয়া সম্ভব। পরিকল্পনা প্রণয়নে স্থানীয় ফলাফল অর্জনের দিকে গুরুত্ব আরোপ করা এবং নিমণ-উধর্ক্ষর্মূখী পদ্ধতি অনুস্মরণ করলে প্রত্যাশিত উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়। সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করার মাধ্যমে স্থানীয় সমস্যার সমাধান করে একটি কার্যকর ও শক্তিশালী উপজেলা পরিষদ গঠণ করাই এই পরিকল্পনার মূল লক্ষ্য। আর এই বিষয়টির প্রতি দৃষ্টি রেখে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার প্রতিটি মানুষ যাতে এ পরিকল্পনার সুফল পায় সে বিষয়টির প্রতি বিশেষ ভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরের পরিকল্পনা বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সকল শ্রেণীর মানুষের দোড় গোড়ায় সেবা পৌঁছে দেওয়ার মাধ্যমে উন্নয়নের স্বর্ণশিখরে পৌঁছে দেবে এই প্রত্যাশা আমাদের ।

 

উপজেলার পটভূমি ও নামকরণ:

 

ভূ-প্রাকৃতিকভাবে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় কোথাও কোথাও দোআঁশ মাটি পাওয়া গেলেও অধিকাংশ মাটি বেলে দোআঁশ প্রকৃতির ‘বালিয়াডাঙ্গী ’- শব্দটির শাব্দিক বিশ্লেষণ করলে দাড়ায়  বালিয়া অর্থাৎ বালি এবং ডাঙ্গী অর্থাৎ ডাঙ্গা বা উঁচু জায়গা। বালিয়াডাঙ্গী মৌজা উপজেলার অন্যান্য গ্রাম গুলোর থেকে তুলনামূলকভাবে উঁচুতে অবস্থিত। বালিমাটির আধিক্যের কারণে মৌজার নাম বালিয়াডাঙ্গী হয়েছে বলে মনে করা হয়। বালিয়াডাঙ্গী মৌজায় বালিয়াডাঙ্গী থানা প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় মৌজার নাম অনুসারে থানার নামও বালিয়াডাঙ্গী হয়। ১৯৮৩ সালে বালিয়াডাঙ্গী থানা বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় রুপামত্মরিত হয়।