মেনু নির্বাচন করুন

রূপগঞ্জের জমিদার বাড়ির

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার এক কি.মি পশ্চিমে তীরনই নদীর গা ঘেষে রূপগঞ্জ নামক গ্রামে রাজবাড়িটির অবস্থান। বর্তমানে এর অস্ত্বিত নেই বললেই চলে। একদা এই গ্রামটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অপরূপ ছিল বলে এর নাম রূপগঞ্জ হয় । সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে তৎকালীন জমিদার শ্যাম প্রসাদ রায় এই গ্রামে গড়ে তুলেছিলেন তার বাসভবন। বাসভবনের পাশে ছিল বিভিন্ন ফল ও দূর্লভ বৃক্ষ সমৃদ্ধ বাগান। জীবনসঞ্জীবনী দূর্লভ বৃক্ষ ‘‘অমৃত গাছ’’ এই বাগানে ছিল বলে জানা যায়। বর্তমানে এর ধক্ষংসাবশেষ ছাড়া কিছু দেখতে পাওয়া যায় না। উঁচু ভিটার বিভিন্ন স্থানে ভবনটির ইট এবং মাটির মধ্যে নকশাদার ইট মাঝে মাঝে পাওয়া যায়। বর্তমানে জমিদার বাড়ির বিভিন্ন এলাকার দুর্বৃত্তদের দখলে  চলে যাওয়ায় এর সীমানা ক্রমশই সঙ্কুচিত হয়ে পড়ছে। এলাকাবাসীর দাবী জমিদার বাড়ির এলাকা চিহ্নিতকরণ, বেদখলকৃত জমি উদ্ধারসহ ভবনটির স্থানে  প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহায়তায় অনুরূপ ভবন নির্মাণের মাধ্যমে সংরক্ষণ করা ও দর্শনীয় স্থান হিসেবে গড়ে তোলা।

কিভাবে যাওয়া যায়:

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার এক কি.মি পশ্চিমে তীরনই নদীর গা ঘেষে রূপগঞ্জ নামক গ্রামে রাজবাড়িটির অবস্থান।


Share with :

Facebook Twitter